গেইলের ৫০০ ছক্কা, তারপরও..

gayle copy

ক্রিকবিডি২৪.কম রিপোর্ট

ক্রিস গেইল ফুরিয়ে যাননি। বরং ক্যারিয়ারের শেষ প্রান্তে দাঁড়িয়ে যেন সেই পুরনো ছন্দের দেখা পেয়েছেন। ৩৯ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান বিশ্বকাপ ক্রিকেটের আগে ফিরে পেয়েছেন নিজেকে। যদিও কিছুদিন আগে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) রংপুর রাইডার্সের হয়ে ফ্লপ ছিলেন তিনি। তবে বিশ্বকাপের আগে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সুযোগ পেয়েই নিজেকে উজাড় করে দিলেন তিনি।

এবার প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৫০০ ছক্কা হাঁকানোর রেকর্ড গড়লেন তিনি। অসাধারণ এক শতরানে নিজেকে নিয়ে গেলেন অনন্য উচ্চতায়। টেস্ট, ওয়ানডে আর টি-টুয়েন্টি তিন ফরম্যাট ৫১৫ ইনিংসে নিজেকে নিয়ে গেলেন ইর্ষনীয় উচ্চতায়।  বুধবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চতুর্থ ওয়ানডে ৫০০ ছক্কার মাইলফলক টপকে যান ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই মহা তারকা। অার দেশের পক্ষে দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে ওয়ানডেতে দশ হাজার রান ক্লাবে নাম লেখালেন। ১০৪০৫ রান করে শীর্ষে লিজেন্ড ব্রায়ান লারা।

বুধবার দ্বিপাক্ষিক সিরিজে সর্বোচ্চ ছক্কার রেকর্ডও গড়েন গেইল। ইংলিশদের বিপক্ষে চলতি সিরিজে তার ছক্কার সংখ্যা ২৬টি। আগের রেকর্ডটি ছিল রোহিত শর্মার। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ছয় ম্যাচের সিরিজে এই ভারতীয় হাঁকান ২৩ ছক্কা।

ম্যাচে অবশ্য গেইলদের আগেই ঝড় তুলে ইংলিশরা। ম্যাচে ইংলিশরা এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ছক্কার রেকর্ড গড়ে। ৬ উইকেটে ৫০ ওভারে ৪১৮ রান তুলে অতিথিরা। ইংল্যান্ডের জস বাটলার ৭৭ বলে করেন ১৫০ রানে। হাঁকান ১২টি ছক্কা। ওয়েন মর্গ্যান ৮৮ বলে ১০৩। ৭৩ বলে ৮২ অ্যালেক্স হেলস। জনি বেয়ারস্টোর ৪৩ বলে খেলা ৫৬ রান।

সব মিলিয়ে ইংল্যান্ড হাঁকায় ২৪ ছক্কা। এই সিরিজেরই প্রথম ওয়ানডেতে ২৩ ছক্কায় রেকর্ড গড়ে উইন্ডিজ।

গেইল ম্যাচে ৯৭ বলে করেন ১৬২ রান। ইনিংস ছিল ১৪ ছক্কা ও ১১ চার। ৪৮ ওভারে ৩৮৯ রান তুলে উইন্ডিজ। ২৯ রানে জয় পায় ইংল্যান্ড।

সংক্ষিপ্ত স্কোর-
ইংল্যান্ড: ৫০ ওভারে ৪১৮/৬ (বেয়ারস্টো ৫৬, হেলস ৮২, রুট ৫, মর্গ্যান ১০৩, বাটলার ১৫০, স্টোকস ১১, মইন ০*; কটরেল ১/৬৪, হোল্ডার ০/৮৮, নার্স ১/৬৮, বিশু ০/৪৩, ব্র্যাথওয়েট ২/৬৯, টমাস ২/৮৪)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ৪৮ ওভারে ৩৮৯ (গেইল ১৬২, ক্যাম্পবেল ১৫, হোপ ৫, ব্রাভো ৬১, হেটমায়ার ৬, হোল্ডার ২৯, ব্র্যাথওয়েট ৫০, নার্স ৪৩, বিশু ০, কটরেল ০*, টমাস ০; ওকস ০/৯১, উড ৪/৬০, প্লানকেট ০/৪০, স্টোকস ১/৭৭, রশিদ ৫/৮৫, মইন ০/৩১)
ফল: ইংল্যান্ড ২৯ রানে জয়ী
ম্যাচসেরা: জস বাটলার

প্রত্যুত্তর

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>